এই দেশে কি রাজনীতি আছে?

লিখেছেন মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন

যে দেশে খালেদা জিয়ার মত নেত্রী একপ্রকার গৃহবন্দী। মিডিয়ার সামনে কোন বক্তব্য দিতে পারেনা, ঘর থেকে বের হতে পারেনা, নেতাকর্মীদের দিকনির্দেশনা দিতে পারেনা, সেই দেশে কি রাজনীতি থাকতে পারে?এই দেশে কি রাজনীতি আছে? বাংলাদেশের প্রধান দুটি দল আওয়ামীলীগ ও বিএনপি। বিএনপি নিশ্চিত পরাজয় জেনেও আওয়ামীলীগের একনিষ্ঠ নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন অংশ নেয়। বিএনপি যাচ্ছেতাইভাবে নির্বাচনে হেরে যায়, তবুও বারবার অংশ নেয়। তারা সমালোচনা করে, কিন্তু প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচনের জন্য আন্দোলন গড়ে তোলে না। এই দেশে কি রাজনীতি আছে? দেশে নির্বাচন ব্যবস্থা বলতে কিছু নাই। মানুষজন ভোট দিতে পারেনা। এখন অবশ্যই আপনি সাধারণ মানুষকে ভোট দিতে যেতে দেখবেন না। কিন্তু ভোট দিতে না গেলেও ভোট ঠিকই হয়ে যায়। রাজনীতির এই অপমৃত্যু নিয়ে কারও মাথাব্যথা নাই। কি ভাবছে আমাদের দেশের রাজনীতিবিদরা? গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী বাদে এবিষয়ে সকলে একপ্রকার চুপ!এভাবে একটি দেশ চলতে পারে? এই দেশে কি রাজনীতি আছে? দেশের বর্তমান অবস্থা কে জানেনা? পুলিশ, আর্মি, গোয়েন্দা সংস্থা, মানবাধিকার সংগঠন, সচিব, আমলা, সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারী? সবাই জানে। কিন্তু জেনেও জানেনা। এই দেশে কি রাজনীতি আছে? আমি আপনি বিচ্ছিন্ন প্রতিবাদ করি। কেউ প্রতিবাদ করে শাহবাগ, কেউ প্রেসক্লাব, কেউ রাজু ভাস্কর্যে। দাবি সবার এক, কিন্তু এককাতারে আসতে পারিনা, কি মূল্য আছে এই বিচ্ছিন্ন প্রতিবাদের?জানিনা! জানিনা! দেশটার ভবিষ্যৎ কি জানিনা!তবে আওয়ামীলীগের জন্যও যে এই পরিস্থিতি সুখকর হবেনা, তা তারা আজ হোক কাল হোক ঠিকই জানবে।

Sharing is caring!