এবার শুঁটকি উৎপাদন শিখতে ৩০ কর্মকর্তা যাবেন বিদেশে!

এবার শুঁটকি উৎপাদন ও প্রক্রিয়াজাতকরণ শিখতে ৩০ জন কর্মকর্তাকে বিদেশে পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন করপোরেশন (বিএফডিসি)। এ জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

‘কক্সবাজার জেলায় শুঁটকি প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প স্থাপন’ প্রকল্পের অধীনে এ প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ২০০ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। চলতি সময় থেকে ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

ইতিমধ‌্যে এ প্রকল্পের প্রস্তাব পরিকল্পনা কমিশনে পাঠিয়েছে বিএফডিসি। কিছুদিনের মধ্যে প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সভা হবে। উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনায় (ডিপিপি) বিদেশে ৩০ জন কর্মকর্তার প্রশিক্ষণের জন্য ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা ব‌্যয়ের প্রস্তাব করা হয়েছে। পরিকল্পনা কমিশন করোনা মহামারির কারণে দেশের অর্থনৈতিক বাস্তবতা বিবেচনায় নিয়ে বৈদেশিক প্রশিক্ষণ খাতে ব্যয় কমানো প্রয়োজন বলে মত দিয়েছে।

বিএফডিসি সূত্রে জানা গেছে, জাপান, আইসল্যান্ড, জার্মানি ও ফ্রান্স শুঁটকি প্রক্রিয়াকরণে এগিয়ে থাকায় বিদেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে এসব দেশ বেছে নেওয়া হবে। প্রকল্পের আওতায় ৩৫০টি গ্রিন হাউস মেকানিক্যাল ড্রায়ার ও ৩০টি মেকানিক্যাল ড্রায়ার নির্মাণ করা হবে। এসব যন্ত্র পরিচালনার জন্য বিদেশে প্রশিক্ষণ নেওয়া প্রয়োজন। বিদেশ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে এলে শুঁটকির মান বাড়বে।

বাংলাদেশের উৎপাদিত শুঁটকি সিঙ্গাপুর, হংকং, মালয়েশিয়া, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রভৃতি দেশে রপ্তানি করা হয়। সমুদ্র এলাকায় পচন, পোকামাকড়ের আক্রমণে ১০ থেকে ৩৫ শতাংশ শুঁটকি নষ্ট হয় বলে অনুমান করা হয়।

Sharing is caring!