চূড়ান্ত অবিচার করতে মাহে রমজানকেই বেছে নিতে হয়

পবিত্র মাহে রমজান আবারও কড়া নাড়ছে আমাদের দরজায়! আমাদের সকলের ধর্ম মানা ও তা পালন করার দৃষ্টান্ত আবারও নিজের চোখে দেখার সৌভাগ্য হবে কিছুদিনের মধ্যেই!
এই ধরেন বাজারে যেয়ে দেখবেন পবিত্র রমজান উপলক্ষে, আমাদের পছন্দের নিত্য প্রয়োজনীয় ছোট, বড় সকল পণ্যদ্রব্যের দাম আমাদের অতি সাধু বিক্রেতাগণ একেবারেই কমিয়ে রাখা শুরু করবেন 🤣! কি বিশ্বাস হচ্ছে না?
আহা বুঝার চেষ্টা করুন! শয়নে, স্বপনে কমিয়ে দেবে আর কি! 😅
এত উত্তম চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যমন্ডিত মানুষের ভিড়ে ধর্মের দোহাই কি আসলেই মানায় আমাদের মুখে?
এই রমজানের পর আগামী রমজান আসার আগে পর্যন্ত আমরা আমাদের ভন্ডামি, দ্বিচারিতা আবার সব ভুলে যাবো!
আবারও পূর্ণদ্যোমে খাবার দাবারে মনের মাধুরি মিশিয়ে বিষাক্ত রঙের সমাহার ঘটাবো, মেয়াদোত্তীর্ণ মালামাল রাখবো, পঁচা খাবার ফ্রিজারে ভরে রাখবো… এভাবেই চলবে আর পবিত্র মাহে রমজানে আমাদের অশেষ নেকি হাসিল হতেই থাকবে!
সময়ে সময়ে ভেজাল পণ্যের জন্য আমাদের খুব ভাল মানুষ ও দরবেশের দেশে পুলিশ ও ম্যাজিষ্ট্রেট দিয়ে ব্যবস্থা নিতে হবে বরাবরের মতই! আমরা কত স্বচ্ছ মনের, শুধু একবার চিন্তা করেন! চূড়ান্ত অবিচার করবার জন্য আমাদের পবিত্র মাহে রমজানকেই বেছে নিতে হয় 😢
এত ভাল মন,মানসিকতার এই মানুষদের মাঝে আমরা বেশ চমৎকারভাবেই বেঁচে আছি!
সকলের শুভ বুদ্ধির উদয় হোক।

# ফেসবুক থেকে সংগৃহিত
#এডিসি (মিডিয়া অ্যান্ড পিআর)
ডিএমপি

Sharing is caring!