সংকটাপন্ন ব্যারিস্টার রফিক-উল হক

সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ও সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের অবস্থা সংকটাপন্ন। আদ-দ্বীন হাসপাতালের মহাপরিচালক ডা. অধ্যাপক নাহিদ ইয়াসমিন বলেছেন, উনি এখনো লাইফ সাপোর্টে আছেন। সব মিলে তিনি সংকটাপন্ন অবস্থায় আছেন। বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যায়তিনি আক্রান্ত। তার চিকিৎসার জন্য একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। আমরা সবাই মিলে চেষ্টা করে যাচ্ছি। বাকিটা আল্লাহর ইচ্ছা। গত মঙ্গলবার হঠাৎ করে শারীরিক অবস্থার অবনতি হয় ব্যারিস্টার রফিক উল হকের।

তার অক্সিজেনের পরিমাণ কমে যায়। তাৎক্ষণিক তাকে নেয়া হয় আইসিইউতে। এরপর থেকে তিনি আইসিইউতেই আছেন।

সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ এই আইনজীবীর রোগমুক্তির জন্য দোয়া করছেন দেশের সর্বস্তরের লোকজন। বৃহস্পতিবার আদ-দ্বীন হাসপাতালে তাকে দেখতে যান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা এবং ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এ সময় তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, একটা ইতিহাস আমাদের সবার জানা উচিত, এরশাদকে আইনের প্রতি আনতে ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের অবদান ছিল। আপনারা সবাই জানেন, তিনি অত্যন্ত বিজ্ঞ আইনজ্ঞ। দেশে অনেকের টাকা-পয়সা থাকে। কিন্তু তারা দান-খয়রাত করে না। ব্যারিস্টার রফিক-উল-হক একজন দানশীল ব্যক্তি। তিনি আরো বলেন, আদ-দ্বীন হাসপাতালে তিনি সর্বোচ্চ চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন। চিকিৎসকরা দিনরাত তার সেবা করছেন। আমি আশা করি, আল্লাহ তাকে সুস্থ করে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দেবেন।

গত ১৫ই অক্টোবর থেকে শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে রাজধানীর মগবাজারে আদ-দ্বীন হাসপাতালে ভর্তি হন সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হক। এরপর কিছুটা সুস্থবোধ করলে রিলিজ নিয়ে বাসায় ফিরে যান। কিন্তু দুপুরের পরপরই ফের তাকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।
জানা গেছে, রক্তশূন্যতা, ইউরিন সমস্যাসহ বার্ধক্যজনিত জটিলতায় ভুগছেন প্রবীণ এই আইনজীবী। তিনি ডা. রিচমন্ড রোল্যান্ড গোমেজের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

Sharing is caring!