হাত ধুলেই শুধু করোনা যাবে না: জিএম কাদের

নাগরিক প্রতিবেদক
জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেছেন,
টিকা কূটনীতিতে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ। বিশ্বের সব দেশ যখন করোনা টিকা দিয়ে
পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে ফেলেছে, তখনো আমাদের করোনা টিকার পূর্ণ নিশ্চয়তা
মেলেনি। মাস্ক পরে আর সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে করোনা মোকাবিলা করা সম্ভব হবে না।
মঙ্গলবার জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে দলের ঢাকা মহানগর
উত্তরের বিভিন্ন থানা কমিটির নেতাদের সঙ্গে জাপার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন
মুহাম্মদ এরশাদের মৃত্যুবাষির্কী উপলক্ষে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এ
মন্তব্য করেন।


দেশে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ অবস্থা ধারণ করেছে বলে উল্লেখ করে জিএম কাদের
বলেন, বিশেষজ্ঞদের মতে ভবিষ্যতে এই অবস্থা আরও খারাপ হতে পারে। সময় মতো
মানুষকে করোনার টিকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় করোনা পরিস্থিতি এতটা খারাপ হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, এদেশে লকডাউন কখনোই সফল হবে না। কারণ, দেশের বেশির ভাগ
মানুষেরই ঘরে খাদ্য নেই, পকেটে পয়সা নেই। তাই খাদ্য সহায়তা না দিলে ক্ষুধার্ত
মানুষ ঘরের বাইরে বের হবেই। শুরু থেকেই আমরা লকডাউনের আগে দরিদ্র মানুষকে
খাদ্য সহায়তা দিতে বলেছি। সদিচ্ছার অভাবে সরকার হতদরিদ্র মানুষের জন্য খাদ্য
সহায়তা দেয়নি।


তিনি বলেন, ৯০ সালের পর থেকে দুটি দলের ব্যবহারে মানুষ বিরক্ত হয়ে পড়েছে। তারা
এক বুক আশা নিয়ে জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে আছে। দেশের মানুষ আবারও
পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেখতে চায়।
৯০ সালের পর প্রতিটি সরকারই জাতীয় পার্টির ওপরে আঘাত করেছে। কিন্তু মানুষের
আস্থা ও ভালোবাসায় জাতীয় পার্টি এখনো মানুষের মাঝে টিকে আছে।
করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় বর্তমান সরকার ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে বলে দাবি
করেন জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু। তিনি বলেন, করোনা
মোকাবিলায় দেশে লকডাউন হচ্ছে না। মানুষের জীবন-জীবিকাও হচ্ছে না। স্বাস্থ্য
মন্ত্রণালয় থেকে উদ্ভট কথা বলা হচ্ছে, যার সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই।

তিনি আরও বলেন, প্রতিটি মানুষের জীবন ও জীবিকার দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে।
দেশের অধিকাংশ গ্রামেই করোনা ছড়িয়ে পড়েছে, কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই।

Sharing is caring!