আফগান শরণার্থীদের জন্য ১০০ মিলিয়ন ডলার জরুরি তহবিল

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শুক্রবার (২৩ জুলাই) আফগান শরণার্থীদের সহায়তার জন্য ১০০ মিলিয়ন ডলারের জরুরি তহবিলের অনুমোদন দিয়েছেন।


হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এ তহবিল শরণার্থীদের জরুরি প্রয়োজন মেটাতে ব্যবহৃত হবে। একই প্রয়োজনের জন্য ২০০ মিলিয়ন পর্যন্ত বরাদ্দ বাড়ানোর অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতিতে সংঘাতের শিকার ও ঝুঁকিতে থাকা ব্যক্তিদের জন্য এ তহবিল থেকে ব্যয় করা হবে।

বিশেষ অভিবাসন ভিসার (এসআইভি) জন্য আবেদন করা কয়েক হাজার আফগান আবেদনকারীকে যুক্তরাষ্ট্রে সরিয়ে নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। তারা ২০০১ সাল থেকে মার্কিন সরকারের পক্ষে কাজ করেছিল। বর্তমানে তারা তালেবান হামলার আশঙ্কায় রয়েছেন।

এ মাসের শেষের দিকে আফগানিস্তান থেকে দুই হাজার ৫০০ জনকে যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ায় মার্কিন সেনাঘাঁটির ফোর্ট লি এলাকায় সরিয়ে নেওয়া হতে পারে।

গত জুলাই মাসের শেষ দিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো সেনা সদস্যদের প্রত্যাহার করে নেওয়ার ঘোষণা দেন।

বাইডেনের এই ঘোষণার পর থেকে একে একে মার্কিন সেনাসদস্যরা আফগানিস্তান ত্যাগ করতে থাকেন। ইতোমধ্যে প্রায় ৯৫ শতাংশ মার্কিন ও ন্যাটো সেনা সদস্য দেশটি থেকে বিদায় নিয়েছেন।

গত ৬ জুলাই আফগানিস্তানের বাগরাম বিমানবন্দর ত্যাগ করেন মার্কিন সেনারা। ২০০১ সালে আফগানিস্তানে মার্কিন অভিযান শুরুর পর থেকেই এই বিমানবন্দরটিকে সদর দফতর হিসেবে ব্যবহার করে আসছিলেন মার্কিন ও ন্যাটো সেনা সদস্যরা।

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণার পর থেকেই দেশজুড়ে দৌরাত্ম্য শুরু করে কট্টর ইসলামপন্থি গোষ্ঠী তালেবান। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ইতোমধ্যে আফগানিস্তানের বিস্তির্ণ এলাকায় নিজেদের দখল কায়েম করতে সক্ষম হয়েছে তালেবান সদস্যরা।

Sharing is caring!