উত্তরের জেলাগুলোতে মৃদু ভূমিকম্প

বাংলাদেশের উত্তরের জেলা দিনাজপুর, রংপুর ও পঞ্চগড়সহ কয়েকটি স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। আর রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ১। তবে এটিকে মাঝারি ধরনের ভূমিকম্প অনুভূত বলা হচ্ছে। ভূমিম্পটির উৎপত্তি স্থল ঢাকার আগারগাঁও আবহাওয়া অফিস থেকে ৪০৩ কিলোমিটার দূরে ভূটানের সামছি এলাকায়। সোমবার (৫ এপ্রিল) রাত ৯টা ১৯ মিনিটে মাঝারি ধরনের ভূমিকম্প অনুভূত হয়।

আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ একে এম নাজমুল হাসান বলেন, রিখটার স্কেলে ৫ থেকে ৫ দশমিক ৯ পর্যন্ত মাত্রাকে মাঝারি ধরনের ভূমিকম্প ধরা হয়। আর ৪ দশটিক ৯ মাত্রার ভূমিকম্প হলে তাকে মৃদু ধরনের ভূমিকম্প বলা হয়।

দেশের কোন কোন এলাকায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, ভূমিকম্পটি দেশের উত্তর পশ্চিম অঞ্চলের পঞ্চগড় জেলার আশপাশের এলাকায় অনুভূত হয়েছে। কোন কোন জেলায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে তা নির্দিষ্ট করে বলা যাবে না। তবে ধারণা করা হচ্ছে দেশের উত্তরাঞ্চল অর্থাৎ পঞ্চগড়, রংপুরসহ আশপাশের জেলায় এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। মূলত আমাদের পক্ষ থেকে ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ও মাত্রার পরিমাণ জানানো হয়।

এদিকে ভূমিকম্পের প্রভাব পড়েছে নেপাল, ভারত, ভুটান এবং চীনেও। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস জানিয়েছে, ভূকম্পনটির মাত্রা ছিল রিখটার স্কেলে ৫ দশমিক ১। ভূ-পৃষ্ঠ থেকে যার গভীরতা ছিল ৮ দশমিক ৪ কিলোমিটার।

এর আগে ২০২০ সালের ১১ অক্টোবর ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ভূকম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে যার মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৪।

Sharing is caring!