বাংলাদেশে ফ্যাসিবাদের ভয়াল থাবা: টক্ শো এবং ওয়েব পোর্টাল নিয়ন্ত্রণের নতুন রেকর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশে আচরণগতভাবে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার ক্রমেই ফ্যাসিবাদী হয়ে উঠেছে। গত সাত দিনে সরকারের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমের উপর নিয়ন্ত্রণের প্রচেষ্টা অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে নজিরবিহীন বলেই মনে হচ্ছে। গত ১৫ অক্টোবর নুরুল কবির সম্পাদিত নিউ এইজ পত্রিকার ওয়েব পোর্টালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষিকা মির্জা তাসলিমা সুলতানার একটি নিবন্ধ প্রকাশের সাথে সাথেই নিউ এইজ এর পোর্টাল বন্ধ করে দেয়া হয়। শুধু তাই নয়, একই দিন কানাডা থেকে পরিচালিত নাগরিক টিভির ওয়েব পোর্টাল বন্ধ করে দেয়া হয় সমগ্র বাংলাদেশ জুড়ে। খোঁজ নিয়ে জানা গিয়েছে ডাকসুর সদ্য সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের পক্ষ নিয়ে একটি সম্পাদকীয় প্রকাশের কারণেই নাগরিক টিভির পোর্টাল বন্ধ করে দেয়া হয়। ।

এদিকে বাংলাদেশের মূল ধারার গণমাধ্যম হিসেবে পরিচিত চ্যানেল আই ১৯ অক্টোবর বাংলাদেশ সময় রাত ৮:৩০ মিনিটে সোমা ইসলামের উপস্থাপনায় “টু দি পয়েন্ট” নামের একটি আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। উক্ত অনুষ্ঠানে নুরুল হক নুর এবং আইনজীবী ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ উপস্থিত থেকে সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন। অনুষ্ঠানটি সম্প্রচার শেষ হবার সাথে সাথেই চ্যানেল আই এর ফেইসবুক পেজ থেকে তা ডিলিট করে দেয়া হয়। শুধু তাই নয় , চ্যানেল আই এর ইউটিউব থেকেও ভিডিওটি সরিয়ে নেয়া হয়।

সরকারের এ ধরণের আচরণের বিষয়ে জানতে নাগরিক টিভির জনপ্রিয় অনুষ্ঠান হার্ড টক্ এ আমরা প্রশ্ন করেছিলাম গণস্বাস্থ কেন্দ্রের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ডাক্তার জাফরুল্লাহ চৌধুরীর কাছে। তিনি বলেন, “এটা এখন আর মনে করার কিছু নেই , সত্যিই এই সরকার একটি স্বৈরাচারী সরকার। এরশাদ সাহেবের সাথেও কথা বলা যেত, কিন্তু শেখ হাসিনার সাথে এখন কথা বলারও কোনো সুযোগ নেই। উনি এখন পুরোপুরি বিদেশ নিয়ন্ত্রিত।”

Sharing is caring!