হাসিনা-রেহানা দ্বন্দ ফের প্রকাশ্যে

ক্ষমতা লোভী মুজিব পরিবারের গল্প এদেশের সব মানুষেরই জানা। এই পরিবার ক্ষমতার জন্য যেকোন কিছু করতে পারে। আর সেই ক্ষমতাকে কেন্দ্র করে শেখ মজিবুর রহমানের দুই মেয়ের লড়াই নিয়ে অনেক দিন ধরেই আলোচনা হচ্ছে তবে কেউ প্রকাশ্যে বলার সাহস পায়নি।

তবে শেখ মুজিবের জন্ম বার্ষিকীতে দুই বোনের দ্বন্দ ফের প্রকাশ্যে চলে এসেছে। বাবার জন্মদিনের মত এমন গুরুত্বপূর্ণ দিনে শেখ হাসিনার সরব উপস্থিতি থাকলেও, সেভাবে দেখা মেলেনি শেখ রেহানার। যেন শেখ রেহানা ইচ্ছা করেই দ্বন্দের বার্তা দিলেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, শেখ হাসিনাই রেহানাকে দূরে সরিয়ে রাখছে ক্ষমতার দখল নিজে রাখার জন্য!

এদিকে আওয়ামী লীগের একটি সূত্র নাম প্রকাশ না করার শর্তে নাগরিক টিভিকে জানায়, সিনিয়র নেতাদের মত করে হাসিনা রেহানাকেও এক প্রকার রাজনীতি থেকে নির্বাসিত করে রেখেছে। রেহানা চাইলেও তাকে নির্বাচনে আসতে দিচ্ছে না হাসিনা ও তার অনুসারীরা।

এদিকে আমু-তোফায়েলের মত দলে কোনঠাসা নেতারা রেহানাকে সাথে নিয়ে নতুন করে দলে অবস্থান তৈরির জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও সূত্রটি নিশ্চিত করে।

এসব ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে আজকের অনুষ্ঠানগুলোতে রেহানার সরব উপস্থিতি না থাকায়। এছাড়া শেখ হাসিনা তার বক্তব্যেও বলার চেষ্টা করেছেন, তার জায়গায় তার ছেলে সজিব ওয়াজেদ জয়ই বসবে। ফলে ক্ষমতা লোভী মুজিব পরিবারের ক্ষমতার দ্বন্দ পর্দার আড়ালে অনেকখানি এগিয়ে গেছে তা টের পাওয়া যাচ্ছে!

Sharing is caring!