অভিমান নিয়ে চলে গেলেন ঢাকাই সিনেমার নায়ক ওয়াসিম

ঢাকাই সিনেমার এক সময়ের জনপ্রিয় নায়ক ওয়াসিম শনিবার (১৭ এপ্রিল) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে না ফেরার দেশে চলে গেছেন। ‘৭০ ও ‘৮০ দশকের শক্তিমান এ অভিনেতা অভিনয়ের মাধ্যমে ভক্তদের অনেক ভালোবাসা পেলেও মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মনে পুষে রেখেছিলেন পুরনো একটি ক্ষোভ।

গণমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সেই ক্ষোভের কথা জানিয়েছিলেন অনেক হিট সিনেমার নায়ক ওয়াসিম। তিনি বলেছিলেন, চলচ্চিত্র জীবনে তার কোনো অপ্রাপ্তি নেই। অর্থ, যশ, খ্যাতি সবই পেয়েছেন। তবে তার একটি ক্ষোভ রয়েছে। সেটি হলো ১৯৭৯ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ অভিনেতার নাম বাদ দেওয়া। সেবার শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বাদে অন্য সবাইকে পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল।

ওয়াসিমের দাবি, ‘ঈমান’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার পাওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু একটি কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্র করে তার নাম বাদ দিয়ে দেয়। সেই ক্ষোভের আগুন আমৃত্যু পুড়েছিলেন ওয়াসিম।

উল্লেখ্য, ১৯৭২ সালে ‘ছন্দ হারিয়ে গেলো’ সিনেমার সহকারী পরিচালক হিসেবে ঢাকাই সিনেমায় ওয়াসিমের অভিষেক। নায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু হয় মহসিন পরিচালিত ‘রাতের পর দিন’ সিনেমার মাধ্যমে। এক সময় বাণিজ্যিক সিনেমায় অপরিহার্য নায়ক হয়ে ওঠেন তিনি।

ওয়াসিম অভিনীত সিনেমাগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ‘ছন্দ হারিয়ে গেলো’, ‘রাতের পর দিন’, ‘দোস্ত দুশমন’, ‘দি রেইন’, ‘রাজদুলারী’, ‘বাহাদুর, ‘মানসী’, ‘সওদাগর’, ‘নরম গরম’, ‘বেদ্বীন’, ‘ঈমান’, ‘লাল মেম সাহেব’ ইত্যাদি।

Sharing is caring!