বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে বাম জোটের হরতাল পালিত

চাল, ডাল, তেলসহ নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে বাম গণতান্ত্রিক জোটের আধাবেলা হরতাল শেষ হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ৬টা থেকে শুরু হওয়া হরতাল চলে দুপুর ১২টা পর্যন্ত।

হরতালে দেশের কোথাও কোনো ভাঙচুরের খবর পাওয়া যায়নি। তবে হরতাল চলাকালে বেলা ১১টার পর রাজধানীর পল্টন মোড়ে হরতাল সমর্থনকারীদের সঙ্গে পুলিশ সদস্যদের সংঘর্ষ হয়েছে। তখন পুলিশ লাঠিচার্জ ও জলকামান ছিটিয়ে নেতাকর্মীদের পল্টন মোড় থেকে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার চেষ্টা করে।

এছাড়া নারায়ণগঞ্জে সকাল সাড়ে ৬টায় চাষাঢ়া গোলচত্বরে বাম জোটের মিছিলে পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে। এতে সেখানে কমপক্ষে ১০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে বাম জোট।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজামান বলেন, তারা (হরতালকারীরা) ককটেল ফাটিয়ে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করলে পুলিশ তো দাঁড়িয়ে থাকবে না। মিছিলে বিকট শব্দের পর ধোয়া উড়তে দেখে আমরা তাদের বাধা দিয়েছি। লাঠিচার্জের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

ককটেল ফাটিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগ মিথ্যা দাবি করেছেন বাম গণতান্ত্রিক জোট নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক ও বাসদ জেলার আহ্বায়ক নিখিল দাস। তিনি বলেন, পুলিশ নিজেদের দোষ ঢাকার জন্য মিথ্যা অভিযোগ করছে।

এদিকে, ভোর ৬টা থেকে হরতাল শুরু হলেও রাজশাহীতে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক ছিল। বাস, ট্রেন ও অন্যান্য গণপরিবহন স্বাভাবিকভাবে চলাচল করছে। দোকান, বিপনী বিতান, শপিংমল খুলতে শুরু করেছে।

জোটের পক্ষ থেকে গতকাল রোববার সংবাদ সম্মেলনে আজ সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সারাদেশে হরতাল চলবে বলে জানানো হয়েছিল। হাসপাতাল, অ্যাম্বুলেন্স ও জরুরি পরিষেবা হরতালের আওতামুক্ত থাকবে বলে জানিয়েছিল বাম জোট। জোটের এই হরতালকে নৈতিক সমর্থন জানিয়েছিল বিএনপি।

Sharing is caring!