আবারও যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলা, আহত ১৩

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের অস্টিন শহরে এক বন্দুক হামলায় ১৩ জন আহত হয়েছেন, তাদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। অস্টিন পুলিশ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত প্রধান কর্মকর্তা জোসেফ শাকন এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছেন।
শনিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে অস্টিনের সিক্সথ স্ট্রিট এন্টারটেইনমেন্ট ডিস্ট্রিক্ট এলকায় এই হামলা হয়েছে। হামলাকারী কতজন ছিল তা এখনও নিশ্চিত হতে পারেনি অস্টিন পুলিশ বিভাগ। হামলার অভিযোগে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতারও করা যায়নি।

বিবৃতিতে অস্টিনবাসীকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে জোসেফ শাকন বলেন, ‘অস্টিনের মানুষজন এখন নিরাপদে আছেন— এ কথা আমি বলতে পারছি না, কারণ, এখন পর্যন্ত সাম্প্রতিক হামলার ঘটনায় যুক্ততার অভিযোগে কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। অস্টিন পুলিশ সার্ভিসের পক্ষ থেকে নগরবাসীকে তাই সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হচ্ছে।’

ঠিক কী কারণে এই হামলা হলো তা এখনও পুলিশের কাছে স্পষ্ট নয় উল্লেখ করে বিবৃতিতে অস্টিন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রধান বলেন, ‘কে বা কারা এই হামলা করেছে এবং কী কারণে করেছে তা এখনও আমাদের কাছে স্পষ্ট নয়। অস্টিন পুলিশ বিভাগ বিষয়টি তদন্ত করছে।’

‘ইতোমধ্যে এফবিআইকে এই হামলার ঘটনা জানানো হয়েছে। এফবিআইও তদন্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অস্টিন পুলিশ ও এফবিআই যৌথভাবে এর তদন্ত করবে।’

চলতি বছর এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটল টেক্সাসে। এর আগে ০৮ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রের এই অঙ্গরাজ্যের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বন্দুক হামলা হয়েছিল। সেবার হামলাকারীসহ ২ জন নিহত ও ৪ জন আহত হয়েছিলেন।

গত বছর নভেম্বরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন শেষ হওয়ার পর থেকে পুরো যুক্তরাষ্ট্রজুড়েই বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটছে। গত ছয় মাসে সবচেয়ে বেশি হামলা হয়েছে কলোরাডো, জর্জিয়া ও ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে।

দেশটির সমাজবিজ্ঞানীরা বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রে আগ্নেয়াস্ত্রের সহজলভ্যতা ও নাগরিকদের অধিকমাত্রায় আগ্নেয়াস্ত্র কেনার প্রবণতাই এ ধরনের সহিংসতা উস্কে দিচ্ছে।

Sharing is caring!