কারণ ছাড়াই বাড়লো তেলের দাম

বাংলাদেশে তেল থেকে শুরু করে কোন পণ্যের উপর নিয়ন্ত্রণ নেই ভোটারবিহীন সরকারের। ফলে দফায় দফায় বাড়ছে তেল থেকে শুরু করে নিত্য পণ্যের দাম। এ নিয়ে যেনো জনমতহীন এই সরকারের কোন মাথা ব্যাথাই নেই। সেই ধারাবাহিকতায় আবারও বাড়ল সয়াবিন তেলের দাম। লিটারপ্রতি বেড়েছে ১২ টাকা। এখন থেকে এক লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হবে ১৫৩ টাকায়। আর খোলা তেল ১২৯ টাকায় বিক্রি হবে।

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) তেল পরিশোধন ও বিপণনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।


জানা গেছে, গত মাসে ৫ টাকা দর বাড়ানোর পর আবার ৩ টাকা কমানোর কথা জানায় সংগঠনটি। তখন প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের মূল্য ১৪১ টাকা ঠিক করা হয়। এ হিসাবে তেলের দর এক লাফে ১২ টাকা বেড়ে প্রতিলিটার ১৫৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। অন্যদিকে খোলা সয়াবিন তেলের দাম লিটারপ্রতি দাঁড়াচ্ছে ১২৯ টাকা। পাঁচ লিটার তেলের বোতল পাওয়া যাবে ৭২৮ টাকায়। পাম সুপার তেল ১১২ টাকা দর নির্ধারণ করা হয়েছে। এ দরে আগামী শনিবার (২৯ মে) থেকে তেল বিক্রি হবে।

দেশের বাজারে গত অক্টোবরেও প্রতি পাঁচ লিটারের এক বোতল সয়াবিন তেলের দাম ছিল ৫০৫ টাকা। এরপর থেকে তা বাড়ছেই। নতুন দাম কার্যকর হলে গত অক্টোবরের তুলনায় পাঁচ লিটার তেল কিনতে মানুষের ব্যয় বাড়বে ২২৩ টাকা।

Sharing is caring!