কাতারে অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন !

নাগরিক ডেস্ক:
‘কাতারের আইনসভার সদস্য নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ভোট আয়োজনের জন্য নির্বাচনী একটি আইনে অনুমোদন দিয়েছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। আগামী অক্টোবরে ভোট হবে বলে জানিয়েছে আমিরের দফতর।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, দেশটির ৪৫ সদস্যবিশিষ্ট শূরা কাউন্সিলের ৩০ সদস্যকে নির্বাচনে এই ভোট হবে। এছাড়া কাউন্সিলের বাকি ১৫ জন সদস্যকে মনোনীত করবেন আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি

কাতার সরকারের যোগাযোগ অফিস বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘সরকারের সাধারণ নীতির অনুমোদন এবং বাজেট অনুমোদনের’ পাশাপাশি নির্বাহী কর্তৃপক্ষের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রয়োগসহ নিযুক্ত এবং নির্বাচিত সদস্যদের একই অধিকার ও দায়িত্ব থাকবে।

সদস্যরা সরকারের জনসাধারণের সাথে সম্পর্কিত প্রস্তাবগুলোও উপস্থাপন করতে পারবেন জানিয়ে ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে যে, শূরা কাউন্সিল নির্বাচন শেখ তামিমের লক্ষ্য অনুযায়ী ‘বিস্তৃত নাগরিকের অংশগ্রহণের দিকে এগিয়ে যাওয়ার গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ’।

প্রধানমন্ত্রী শেখ খালিদ বিন খলিফা আল থানি, যিনি একইসঙ্গে কাতারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসাবেও দায়িত্ব পালন করছেন, বলছেন যে, দেশটি ৩০টি নির্বাচনী জেলায় বিভক্ত ছিল এবং প্রতিটি জেলার জন্য একজন করে প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছিলেন।

নতুন আইনে বলা হয়েছে, ১৮ বা তার বেশি বয়সী নাগরিক ও যাদের দাদা কাতারে জন্মগ্রহণ করেছেন, তারা তাদের বংশধর ও পরিবার যে জেলার বাসিন্দা সেই জেলায় ভোট দিতে পারবেন। প্রার্থীদের অবশ্যই কাতারি বংশোদ্ভূত এবং কমপক্ষে ৩০ বছর বয়সী হতে হবে।

কাতারে পৌর নির্বাচনের আয়োজন হলেও সমস্ত রাজনৈতিক দল নিষিদ্ধ। ২০০৩ সালের গণভোটে কাতারিরা একটি নতুন সংবিধান অনুমোদন করেছিল যার মাধ্যমে শূরা কাউন্সিলের জন্য আংশিক নির্বাচনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল।

Sharing is caring!