‘শ্রীলঙ্কা’ আতঙ্কে বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কা এখন দেউলিয়া। মেগা প্রকল্পএর নামে বাংলাদেশের মত অগাধ দুর্নীতি ডুবিয়েছে দেশটিকে। আর তাই তো আতঙ্ক ভর করেছে বাংলাদেশ সরকারের মধ্যেও। শ্রীলংকার মত উন্নয়নের নামে পুকুর চুরি চালিয়ে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ সরকার।

খেলাপি ঋণের চাপে দেউলিয়া শ্রীলঙ্কার উদ্বেগ ছড়াচ্ছে বাংলাদেশেও। এই যখন বাস্তবতা তখন গণভবনে শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক সংকটের প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের সামষ্টিক অর্থনীতির পর্যালোচনা শীর্ষক উপস্থাপনা দেখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যেখানে বিভিন্ন সূচকে দেশের অর্থনীতি স্থিতিশীল আছে বলে মত দেয় সভা।

পরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ব্রিফ করেন সংশ্লিষ্টরা। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, জিডিপি অনুপাতে দেশের বৈদেশিক ঋণ যেমন অনেক কম, তেমনি আশঙ্কাজনক নয় সুদের হারও। এসময় ঋণ ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ যথেষ্ট বিচক্ষণ বলে দাবি করা হয়। সভায় ঋণের জন্য বাংলাদেশ কোনো একক দেশের ওপর নির্ভরশীল নয় বলেও জানান বক্তারা।

সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস ছাড়াও অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থবিভাগের সিনিয়র অর্থসচিব আব্দুর রউফ তালুকদার, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সচিব আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন নিজ নিজ খাতের পরিস্থিতি তুলে ধরেন। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবও দেন।

এর আগে প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেন তারা। বৈঠক সংশ্লিষ্ট সচিবদের কাছে পরিস্থিতি জানতে চান প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে গণভবন থেকে সংযুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী।

Sharing is caring!