ঢাকায় সানি লিওনকে আসতে দিলো না সরকার

করণজিৎ কর ওয়েভার ওরফে সানি লিওনের ওয়ার্ক পারমিট ও ভিসা বাতিল করেছে বাংলাদেশ সরকার। মেসার্স চেয়ারম্যান ফিল্ম সিন্ডিকেটের ব্যানারে নির্মাণাধীন ‘সোলজার’ নামক একটি চলচ্চিত্রে অংশ নিতে এ বছর বাংলাদেশে আসার কথা ছিল তার। এ জন্য তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে বিদেশি অভিনয়শিল্পী ও কলাকুশলীদের একটি দলের ওয়ার্ক পারমিট ও আগমনের অনুমতি দিয়েছিল তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়। কিন্তু অনিবার্য কারণ দেখিয়ে ওই দল থেকে শুধুমাত্র সানি লিওনের ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করা হয়।

বুধবার চলচ্চিত্রটির প্রযোজক মো. সেলিম খানকে চিঠি দিয়ে এ সিদ্ধান্তের খবর জানিয়ে দিয়েছে মন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে সেলিম খানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মন্ত্রণালয়ের চিঠিটি তিনি দেখেছেন। তবে তিনি ‘সোলজার’ চলচ্চিত্র বানানোর চিন্তা থেকে সরে এসেছেন। তাই সানি লিওনের ওয়ার্ক পারমিট বাতিলের বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন নন তিনি।
এর কারণ উল্লেখ করে তিনি বলেন, এমন বিগ বাজেটের চলচ্চিত্র বাংলাদেশের সিনেমা হলগুলোর জন্য চালানো কঠিন হবে।

এর আগে ২রা মার্চ ‘সোলজার’ চলচ্চিত্রে অংশগ্রহণের জন্য ভারতীয় ১০ অভিনয়শিল্পী ও কলাকুশলী এবং একজন আমেরিকান অভিনেত্রীকে শর্ত সাপেক্ষে বাংলাদেশে আগমনের অনুমতি ও ওয়ার্ক পারমিট দেয়া হয়। ভারতীয় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মধ্যে রয়েছেন- কৌসানী মুখার্জী, রাহুল দেব কৌশাল, রাজেশ কুমার শর্মা, রজতাভ দত্ত, বরজ কল, শান্তি লাল মুখার্জী, খরাজ মুখার্জী। এ ছাড়া পারমিটপ্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন ক্যামেরাম্যান বিক্রম আনন্দ সাবেরাওয়াল, সুপ্রিয় দত্ত, নায়িকার সহকারী দেবাশীষ মুখার্জী। ওই তালিকায় আমেরিকান অভিনেত্রী করণজিৎ কর ওয়েভারের নামও ছিল।

যিনি সানি লিওন নামে অধিক পরিচিত। চলতি বছরের ৫ই মার্চ থেকে ৪ঠা সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ের মধ্যে তার ‘সোলজার’ চলচ্চিত্রে অংশ নেয়ার কথা ছিল।
কেন সানি লিওনের ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করা হয়েছে তা মন্ত্রণালয়ের চিঠিতে উল্লেখ করা হয়নি। সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, পর্নো তারকা হিসেবে পরিচিত সানি লিওন বাংলাদেশে আসলে ধর্মীয় সংগঠনগুলো এর বিরোধিতা করতে পারে। এ নিয়ে যেকোনো ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। বিষয়টি মাথায় রেখেই তার ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করা হয়।

এর আগে ২০১৫ সালে বাংলাদেশে সানি লিওনের একটি ইভেন্টে অংশ নেয়ার কথা ছিল। ওই সময় বাংলাদেশের ধর্মীয় সংগঠনগুলো তার বিষয়ে প্রবল আপত্তি তোলে। কোনো কোনো সংগঠন প্রতিবাদে আন্দোলনও করে। বিভিন্ন পক্ষের দাবির মুখে আয়োজক কর্তৃপক্ষ সানি লিওনের সফর বাতিলের ঘোষণা দেয়।

Sharing is caring!