টেক্সাসে বন্দুক হামলা: নিহত ১, আহত ৫

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের একটি শিল্প এলাকায় বন্দুকধারীর গুলিতে একজন নিহত এবং অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটার দিকে ব্রায়ান শহরের কেন্ট মুর ক্যাবিনেট নামে একটি প্রতিষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ‘বন্দুক সহিংসতাকে’ মহামারি হিসেবে আখ্যায়িত করার কয়েক ঘণ্টা পর এ হামলা হয়েছে। এই সংকট মোকাবিলায় তিনি একটি পরিকল্পনাও উন্মুক্ত করেছেন। পূর্ব টেক্সাসের ব্রিয়ান শহরে বৃহস্পতিবারের এ হামলায় সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে। এর আগেও ওই হামলাকারী হত্যা মামলায় ১ মিলিয়ন ডলার বন্ড নিয়ে জামিন পান।

কর্মকর্তারা বলেন, এ ঘটনার পর ওই ব্যক্তি এক কর্মকর্তাকে গুলিবিদ্ধ করে আহত করেন। সন্দেহভাজন হামলাকারী একজন আসবাবপত্র নির্মাতা ছিলেন।

পুলিশ প্রধান এরিক বুসকে বলেন, ঘটনাস্থলেই এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আরও চার ভুক্তভোগীকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। গুলিতে তারা গুরুতর আহত হয়েছেন।এ ঘটনায় সাতজন ভুক্তভোগীর কথা নিশ্চিত করেছে ব্রিয়ান পুলিশ বিভাগ।

ব্রায়ান পুলিশ আরও জানিয়েছে, গুলিবর্ষণের খবর পাওয়ার পরপরই ছয়টি অ্যাম্বুলেন্স ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং আহতদের দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, হামলাকারী কেন্ট মুর ক্যাবিনেটে কাজ করতেন। সেখানে তিনি হঠাৎ আক্রমণ চালালেন কেন, তা এখনও নিশ্চিত নয়।

সম্প্রতি কলোরাডো, জর্জিয়া ও ক্যালিফোর্নিয়ায় বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে। প্রতিবছর এভাবে এলোপাতাড়ি গুলিতে প্রায় ৪০ হাজার মানুষ নিহত হন। যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক নিয়ন্ত্রণের বিষয়টিও রাজনৈতিকভাবে ঝুঁকিপূর্ণ।

এ ধরনের সহিংসতার সংকট কমিয়ে আনতে বৃহস্পতিবার ছয়টি নির্বাহী পদক্ষেপ ঘোষণা করেছেন বাইডেন। কিন্তু বিরোধী রিপাবলিকানরা তার সেই প্রস্তাবের সমালোচনা করেছেন।

প্রতিনিধি পরিষদের সংখ্যালঘু নেতা কেভিন ম্যাকার্থি বলেন, বাইডেনের এই উদ্যোগ সাংবিধানিক নির্দেশনার বাইরে চলে যাবে।

Sharing is caring!