রমজানের শুরুতেই নিয়ন্ত্রণহীন সবজির বাজার

প্রতি বছরের মতো এবারের রমজানেও ঊর্ধ্বমুখী সবজির বাজার। রোজার শুরুতেই চড়া সবজির বাজার। মানভেদে প্রতিটি সবজির জন্য গুনতে হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা। ইফতারের মুখরোচক খাবার বেগুন আর শসার দাম সপ্তাহ ব্যবধানে কেজিতে ৩০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা দরে। দোকানিরা বলেন, লম্বা বেগুন, গাজর, মরিচ, টমেটো এগুলোর দাম অনেক বেশি।

সরকারি হিসেবে তেলের দাম কমলেও বাজারভেদে সরবরাহ ও দামের ভিন্নতা রয়েছে সয়াবিন তেলের। তাই দেখা দিয়েছে দামের ভিন্নতাও। এ বিষয়ে দোকানিদের বক্তব্য, তেলের সরবরাহ ভালো আছে। সরকার নির্ধারিত ১৬০ টাকা রেটে তেল বিক্রি হচ্ছে। কিন্তু আরেকজন দিলেন নতুন ভাষ্য। তিনি বলেন, বাজারে যদি ৫ লিটারের বোতল পাওয়া যায় তাহলে দেখা যাবে ২ লিটার, ২ লিটার পাওয়া গেলে এক লিটার এবং ১ লিটার পেলে হাফ লিটার নেই। তেল যেভাবে আসার কথা আসেনি। আগের রেটে কিছু তেল আছে এগুলো পাওয়া যায়, কিন্তু নতুন রেটে কোনও তেল পাওয়া যায় না। এজন্য আমাদের বিক্রি করতে অনেক অসুবিধা। ক্রেতারা বলে তেলের দাম কমছে তেল কই। নতুন দামে তো আমাদের দিচ্ছে না।

ভ্যাট-ট্যাক্স কমানোর পরও অন্যান্য রমজানের তুলনায় এবারের রোজায় চিনি, ছোলা ও মসুর ডালের দাম কিছুটা বেশি বলেই অভিযোগ ক্রেতা-বিক্রেতার। একজন বিক্রেতা বলেন, চিনি, মসুরি ডাল, পোলার চাউলের দাম বেশি। অন্যদিকে ক্রেতার ভাষ্য, ইফতারির আইটেমগুলোর দাম অনেক বেশি, কম হলে ভালো হয় সবার জন্য।

Sharing is caring!